1 of 2

কিভাবে নিউজ ট্রেড করতে হয়। (পার্ট ১)

আশাকরি সবাই ভাল আসেন। আজ আমি আপনাদের কে নিউজ এরবেপারে কিছু বলব। প্রথমই বলি যে প্রায় প্রতেকটা নিউজেরই আরেকটা নিউজ এর সাথে রিলেসন থাকে। মানে একটা ভাল আসলে তার পরের টাও ভাল আসার সম্ভবনা থাকে প্রচুর। তাহল আসুন আজেকের ক্লাস সুরু করা জাক।

কোন ধরনের নিউজ আমারা ট্রেড করতে পারি।

সারা ফরেক্স মার্কেটে প্রতি মিনিটে ১০০ এরও বেশি ফাইনানসিয়াল নিউজ পাবলিষ্ট হয়ে থাকে। কিন্তু আমাদের ঐ সব নিউজ গুলাতে কনসেন্ট্রেট করতে হবে, যেগুলা নাকি মার্কেটে ইমিডিয়েটলি ইম্পেক্ট পরে। ফরেক্স মার্কেটে প্রতি মাসে USD এর জন্য প্রাই ৫-১০ টি নিউজ থাকে। ৩-৫ টা থাকে EURO Zone, Australia, Canada, and New Zealand এর থেকে। সেখানে কিছু নিউজ প্রতি মাসে বা ত্রৈমাসিক তারিখ আনুজায়ি। সেই নিউজ গুলা প্রিত মাসে ঐ দিন বা সপ্তাহেই রিলিস হয়ে থাকে প্রতি মাসে।

আমারা ঐসব নিউজেই ট্রেড করবো যেগুলা নাকি (HOT) হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকে, মানে মার্কেট বিষেশত এই নিউজ গুলাতে ইন্টারেস্ট হয়ে থাকে।

সফল ভাবে আর্থনৈতিক নিউজ গুলা ট্রেড করার জন্য আপনাকে আগে নিউজ গুলা বেছে নিতে হবে যে আপনি কোন নিউজ গুলা ট্রেড করবেন, আর কোন গুলা করবেন না।

শুরু করার আগে একটা কথা বলি, সাধারানত এক মাসে ১০০ এর বেশি নিউজ পাবলিষ্ট করা হয়ে থাকে, কি কারনে আপনি আনইমপরটেন্ট নিউজ গুলা ট্রেড করতে জাবেন যেখানে আপনি এমন কিছু নিউজ পাচ্ছেন যেগুলাতে সাকসেস হয়ার পসেবলেটি আনেক বেশি। যাইহোক, আমি কিছু নিউজ এর একটা লিস্ট করেছি যে গুলাতে প্রফিট করার পসেবোলেটি আনেক বেশি (at least 70%)।

বিভিন্ন আর্থনৈতিক নিউজ গুলাকে আমি সাধারনত ৪ টা ভাগে ভাগ করতে পারিঃ

  • Inflation (মুদ্রাস্ফীতি)
  • Economy (অর্থনীতিক)
  • Infrastructure(অবকাঠামো)
  • Others

এই কোর্সটা শুরু করার আগে, আপনার আর্থনীতিবিদ হতে হবেনা বা আর্থনীতি এর কোন ডিগ্রিও আপনার প্রয়জন নেই। আপনার শুধু মাত্র সেগুলাই জানতে হবে যে কোন নিউজ গুলা ট্রেডেবোল, আর নিউজ রিলিস হয়ার আগে আপনাকে কি কি করতে হবে।

এরকম একটা কাহিনি আপনাদের কে আমি বলিঃ একজন বিসনেসম্যন একটা মেশিন কিনলো তার বিসনেস এর জন্য। কিছু দিন পর মেশিনটাতে একটু সমস্যা দেখাদিল। একারনে সে এখন একজন ইস্পেসালিস্ট কে ডাকদিল। ওই লোকটা এসে মেশিনটার দিকে একবার তাকিয়ে একটা হামার বেরকরে মেশিন এর পইছনে একটা বাড়ি দিল, এরপর একটা ম্যজিক হয়ে গেল। মেশিনটা আবারো চলতে লাগোল। তখন সেই বিসনেরম্যন এর মূখে আবার হাসি চলে আসলো। আর সে ঐ ইস্পেসালিটকে তার টাকা দিয়ে বলল যে, তুমি মাত্র ১ মিনিট সময় ব্যবহার করলে আর মাত্র একটা হামার ব্যবহার করলে। ইস্পেসালিস্ট উত্তর দিলঃ ভাল স্যার, আপনি আমাকে আমার জিবনের ১ মিনিট এর জন্য টাকা দেননি, যেটা এই ঘরে ঘটেছে। না আপনি আমাকে হামার দিয়ে বারি মারার জন্যও টাকা দেন নি। আপনি আমাকে এই জন্য টাকা দিয়েসেন যে ঐ মেশিন টার কোথায় বাড়ি মারতে হবে আর কতটুকু জুরে।

এই বই এর শেষে আমি আপনাদেরকে কি দেখাতে যাচ্ছি। আপনি একটু বোরিং হয়ে যাবেন, কিন্তু প্লিস আপনি আমার সাথে শেষ পর্যন্ত থাকুন এবং এটা ভবিষৎ এ ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। আমি এটা আপনাদের স্ট্রংলি সাজেস্ট করসি যে নিউজ এর রিপোর্ট আর তাদের ভেতর যেই রিলেসনসিপ আসে এটা ভাল করে মনে করে রাখাবেন, কারন এটা যদি আপনি করতে পারেন, তাহলে আপনি মার্কেটএর সেটাপ গুলা শুধু নিউজ দিয়েই বুঝতে পারবেন। এটা দিয়ে আস্তে আস্তে মার্কেট এর সেন্টিমেন্ট গুলা বুঝতে পারেবেন এবং আবশেষে আপনি এটা থেকে কিছু এডভান্টেজ নিতে পারেবন।

চলুন শুরু করা যাক।

It’s all about the Interest rate

এটা সম্ভবত এই সেকশন এর সবচেয়ে ইম্পর্টেন্ট বিষয়। সব মেজর কারেন্সির ইন্টারেস্ট রেইট গুলা সরকার এর দারা কন্ট্রোল করা হয়ে থাকে বা একটা প্রতিষ্ঠান সরকার কে জবাব দিহি করে থাকে। আর সরকার তাদের হুকুম করে থাকে সাধারনত ইনফুলেসন বা মুদ্রাইস্ফিতি কে কন্ট্রোলে রাখতে। বেশি ইনফুলেশন মানেই, ইন্টারেস্ট রেইটা বারানো, আর এই কারনে ঐদেশের আর্থনৈতিক আবস্থা খারাপ এর দিকে জুকে পরে। বেশি রেইট মানেই, ধারকরা টাকার উপর বেশি খরচ, ক্রেডিট কার্ড এর জন্য বেশে খরচ, একটা বাড়ি কেনার জন্য বেশি টাকা খরচ করতে হয়… ইত্যাদি। এসব কারনে আর্থনৈতিক আবস্থামন্দা হয়ে পরবে, টাকার মান কমেযাবে, এবং কিছু ইনফুলেশন কন্ট্রোল করা হবে। যদি ইনফুলেসন কম থাকে, তাহলে এর বিপরিত কাজ হয়ে থাকে। রেট কমানো হলে, ব্যংক গুলা ধার দিতে উৎসাহ হয়ে এঠবে, আর্থনৈতিক আবস্থা আবার উত্তেজিত হয়ে উঠবে। এরপর আবার ইনফুলেসন বেরেজাবে।

প্রতেকটা দেশের সরকার আদেশকরে থাকে ইনফুলেসন কন্ট্রোল করতে যেটাকে বিভিন্ন সেন্ট্রাল ব্যংক বলে থাকে “Low Stable Inflation” আবার এটাকে অনেকে “Price Stability” বলে থাকে।

A low stable inflation of 2~3 percent per year is the ideal inflation result that most major central banks want.

আরেকটা ইমপরটেন্ট বিষয় জানা দরকার আর সেটা হল প্রতেক্টা কারেন্সি হল একটা সম্পদ এবং আর যার আয় হয় ইনারেস্ট রেইট দারা। যদি কোন দেশের ইন্টারেইস্ট রেইট বারানো হয় তাহলে ঐদেশের টাকার ভেলুও বেরে যায়। আবার এখানে একটা প্রবলেম আসে সেটা হল যে, যদি ইন্টারেইস্ট রেইট বারানো হয় তাহলে সবাই রিন নিতে পারবেনা বা রিন নেয়া কমে যাবে এই কারনে বেকারত্তের হার বেরে যাবে। তবে সেখানে আরো কিছু বিষয় আসে।

HIGHER INTEREST RATE

=

HIGHER INFLATION

=

HIGHER CURRENCY VALUE

                                                                 OR

LOWER INTEREST RATE

=

LOWER INFLATION

=

LOWER CURRENCY VALUE

NEWS – INFLATION

এখানে শুধু ইনফুলেসন অনেক ইম্পরটেন্ট ফেক্টর যেটা ইন্টারেইস্ট রেইটকে প্রভাবিত করে। তাই ইনফুলেশন ফরেক্স মার্কেট এর জন্য আন্যতম একটা হাতিয়ার।

এখন আপনার মেমরিটাকে একটু রিফ্রেশ করুন। ফান্ডামেন্টাল ট্রেডেং একটু ফটকামুলক ট্রেডিং। নিউজ ট্রেডাররা তাদের পজিশন নেই এর উপর ভিত্তি করে যে, এখন এই কারেন্সিটা কথায় যেতে পারে, এটা না যে মার্কেটে প্রাইজ এখন কোথায় আসে। আতএব, আমারা যখন ইনফ্লাসন এর হায়ার কোন নিউজ রিলিস পাই, মার্কেট তখন রিলিস নাম্বার এর উপর ভিত্তি করে মার্কেট কে উঠিয়ে নিয় যায়।

ইনফুলেসন এর জন্য কিছু ইম্পরটেন্ট নিউজঃ

CPI – Consumer Price Index – আর্থনীতিবিদরা CPI কে ইনফুলেসন নাম্বার বলে থাকে। CPI সাধারনত দুই ধরনের হয়ে থাকেঃ

Core number
Headline number
হেডলাইন CPI নাম্বার আর শুধু CPI, যেখানে সব কিছু আন্তরভুক্ত করা হয়ে থাকে।

আর কোর CPI নাম্বার হল যেখানে ফুড অ্যান্ড এনার্জি কস্ট বাদ দেয়া হয়ে থাকে। যেটা ইনফুলেসন এর একটা ক্লিয়ার ভিউ তৈরি করে থাকে, কারন ফুড অ্যান্ড এনার্জি বিভিন্ন ঋতু এর উপর নিরভর করেথাকে।

Another important Inflation news release is:

PPI – Producer Price Index – measures the rate of inflation (i.e., the rate of price changes) experienced by manufacturers when purchasing goods and services. উন্নতির প্রবনাতা একটা দেশের কারেন্সির উপর আনেক পসেটিভ ইফেক্ট পরে থাকে। যখন manufactures(নিরমাতারা) বেশি পে করে goods and services এর জন্য, তাহলে সাধারানতই জনগন এর কাছে সেটা বেশি দামে বিক্রি করবে। এরমানে ppi হল ভোক্তাদের ইনফুলেসন এর মেইন সূচক।

সব ppi নিউজ রিলিসই হাই ইম্পেক্ট না। উপুরে বর্নিত হিসেবে, কিছু কারনে, যদি হাই PPI রিলিস হয় তাহলে সেটা CPI কেও প্রভাবিত করে থাকে। কারন যদি কোন পন্য বা সেবা উৎপাদন করতে বেশি খরচ করা হয়ে থাকে তাহলে তাহলে সেই প্রভাইডার এর কাছে কোন চয়েজ থাকেনা সেটা জনগন এর মাঝে পাস করা ছাড়া। মানে যদি কোন পন্য উৎপাদন করতে বেশি খরচ করে তাহলে সেটা তাকে বেশি দামে বিক্রি করতে হবে। তখন জনগন কেও সেটা বেশি দামে ক্রয় করতে হবে। এ কারনে দেশে ইনফুলেশন তৈরি হয়ে গেলোনা। সাধারনত প্রতি মাসে ppi নাম্বার টা প্রতি মাসের cpi এর আগেই রিলিস হয়ে থাকে।

এরমানে আমার যদি কোন মাসে হাই ppi নাম্বার রিলিস হতে দেখে তাহলে ঐমাসে cpi ও বেশি আসাবে।

HIGHER PPI

=

HIGHER CPI

=

HIGHER INFLATION

=

HIGHER INTEREST RATE

                                                                       OR

LOWER PPI

=

LOWER CPI

=

LOWER INFLATION

=

LOWER INTEREST RATE

NEWS – ECONOMY

আর্থনিতি হল ঐদেশের ইনফুলেসন এর আরেকটি চালক। সংক্ষিপ্তে, আমারা যদি কোন দেশের ভাল একটা আর্থনৈতিক আবস্থা দেখি তাহলে আমারা ঐদেশের ইনফুলেসন ও বেশি দেখবো, আর সাথে সাথে হায়ার ইন্টারেইস্ট রেইট ও সেটা ফোলো করতে থাকবে, আর সাথে সাথে কারেন্সি ভেলুও বাড়তে থাকবে।

আরেক দিকে, যদি আমারা কোন দেশের খারাপ একটা অর্থনৈতিক আবাওস্থা দেখি তাহলে আমারা ঐদেশের ইনফুলেশন কম থাকবে, ইন্টারেইস্ট রেইট কমানো থাকবে এবং মার্কেটে কারেন্সি ভ্যলু ও কম থাকবে।

News releases related to the economy are:

  1. News that directly measures the growth of the Economy.
  2. News that directly measures the growth of the Job Market.
  3. News that directly measures the Housing Market.

News that measures the growth of the economy are :

GDP – Gross Domestic Product – কোনো নির্দিষ্ট সময়ে সাধারণত এক বছরে একটি দেশের আভ্যন্তরে বা ভৈগোলিক সীমারেখার মধ্যে উৎপাদিত দ্রব্যসামগ্রী ও সেবাকর্মের আর্থিক মূল্যকে মোট দেশজ উৎপাদন বা GDP বলে থাকে। এ হিসাবে শুধু দেশের আভ্যন্তরে আবস্থান্রত দেশি বা বিদেশি বিনিয়োগ দ্বারা উৎপাদিত সকল দ্রব্য ও সেবাকর্মের পরিমাঙ্কে হিসাব করে হয়। কিন্তু দেশের বাইরে আবস্থানরত দেশিয় নাগরিকদের উৎপাদিত দ্রব্য বা সেবাকর্মের মোট মূল্য দেশজ উৎপাদনের মধ্যে ধরা হয় না। সুতরাং GDP= কোন নির্দিষ্ট সময়ে দেশে উৎপাদিত দ্রব্য ও সেবার মূল্য + বিদেশিদের আর্জিত আয় – দেশিয় নাগরিক কর্তৃক বিদেশ হতে আর্জিত আর্থ।

ওকে আজ এই পর্যন্তই, আবার আরেক দিন এটা শেষ করে ফেলবো। সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন।

হোম
নিউজ
ট্রেডিং স্কুল
ব্রোকার
সিগন্যাল
ক্লাব
Scroll to Top