ইলন মাস্কের সোশ্যাল মিডিয়া ক্রিপ্টোকারেন্সিতে প্রভাব ফেলতে পারে

টেসলা এবং স্পেসএক্সের সিইও ইলন মাস্ক বলেন, তিনি বাকস্বাধীনতার সাথে একটি নতুন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম তৈরি করার জন্য গুরুত্বের সাথে চিন্তাভাবনা করছেন।

টেসলা বিলিয়নেয়ার বলেন, ‘‘টুইটার প্রকৃতপক্ষে পাবলিক টাউন স্কোয়ার হিসেবে কাজ করে, বাকস্বাধীনতার নীতিগুলো মেনে চলতে ব্যর্থ হওয়া মৌলিক গণতন্ত্রকে দুর্বল করে।

টেসলা ও স্পেসএক্সের সিইও এলন মাস্ক গত কয়েকদিন ধরে টুইটারে একটি নতুন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে আলোচনা করছেন। সম্প্রতি তিনি টুইটার ও এর নীতিগুলোর সমালোচক হয়ে উঠেছেন। তিনি বলেন, প্ল্যাটফর্মটি বাক-স্বাধীনতার নীতিগুলো মেনে চলতে ব্যর্থ হয়ে গণতন্ত্রকে দুর্বল করছে।

Untitled-1.jpg

তিনি ওপেন সোর্স অ্যালগরিদমসহ একটি নতুন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম তৈরির কথা বিবেচনা করবেন কিনা সেই প্রশ্নের উত্তরে বলেন, বিষয়টি নিয়ে গভীরভাবে চিন্তা করছি।

আলোচনার শুরু হয় শুক্রবার যখন ইলন মাস্ক টুইটার জরিপে ৭৯.২ মিলিয়ন অনুসারীদের ভোট দিতে বলেছিলেন। ক্যাপশনে লিখেছেন, টুইটার বাক স্বাধীনতার নীতি মেনে চলে কিনা, যা গণতন্ত্রের জন্য অপরিহার্য।  ভোট টুইটের ২৪ ঘন্টা পর দেখা যায় ২ মিলিয়নেরও বেশি ভোট হয়। যার মধ্যে ৭০.৪% বলেছেন না।

ইলন মাস্ক যদি সোশ্যাল মিডিয়া তৈরিতে সক্ষম হয়, তার সাথে কোনভাবে ডোজকয়েনের সম্পর্ক থাকে। সেক্ষেত্রে  ডোজ কয়েনের প্রাইস ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেতে পারে।