ইউক্রেনীয় সরকার NFT সংগ্রহের মাধ্যমে মিউজিয়াম অব ওয়ার চালু করেছে

ইউক্রেনীয় সরকার ‘‘যুদ্ধের জাদুঘর’’ নন-ফাঞ্জিবল টোকেন (NFT) সংগ্রহ চালু করেছে। সরকার দ্বারা সেট করা জাদুঘরের ওয়েবসাইট অনুসারে, জাদুঘরের সমস্ত আয় সেনাবাহিনী এবং বেসামরিকদের সাহায্য করার জন্য ইউক্রেনের মিনিস্ট্রি অব ওয়ালেটে সরাসরি জমা হবে।

মূলত ইউক্রেন সরকার রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তহবিল সংগ্রহের জন্য ‘‘মেটা হিস্ট্রি: মিউজিয়াম অব ওয়ার’’ নামে একটি নন-ফাঞ্জিবল টোকেন (NFT) সংগ্রহ চালু করেছে। ইউক্রেনের ভাইস প্রধানমন্ত্রী এবং দেশের ডিজিটাল মন্ত্রী মাইখাইলো ফেদোরভ শুক্রবার NFT সংগ্রহ চালু করার ঘোষণা দিয়ে টুইট করেছেন।

ওয়েবসাইটে ব্যাখ্যা করা হয় মিউজিয়াম অফ ওয়ার এনএফটি প্রকল্পের লক্ষ্য হল ‘‘এ সময়ের বাস্তব ঘটনাগুলোর স্মৃতি সংরক্ষণ করা, বিশ্বের ডিজিটাল সম্প্রদায়ের মধ্যে সত্য তথ্য ছড়িয়ে দেয়া এবং ইউক্রেন বাহিনীর জন্য অনুদান সংগ্রহ করা।

Untitled-1.jpg

এনএফটি সংগ্রহের ওয়েবসাইটে আরও বিশদ বিবরণ দেয়া হয় যে সংগ্রহটি ‘‘আধুনিক সময়ে ইউক্রেনীয় ইতিহাসের ঘটনাগুলোর একটি কালানুক্রমিকতা সেট করা হবে। Fair.xyz নামে ইউক্রেনীয় সরকার ওয়েবসাইটটির নাম দিয়েছে।  

ফোর্বস জানিয়েছে এগুলো ইথেরিয়াম ব্লকচেইনে সেল করা হবে। আশা করা হচ্ছে ওয়েবসাইটে ৫,০০০ থেকে ৭,০০০ এনএফটি থাকবে যার প্রতিটির প্রাইস প্রায় ৪৫০ ডলার হবে। NFT সংগ্রহের জন্য অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে বলা হয়েছে, ‘‘আমাদের ওয়ারলাইনে যুদ্ধের প্রতিটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা অন্তর্ভূক্ত রয়েছে, সবগুলো  NFT কলানুক্রমিক ক্রমে সেল হবে।

১৪ মার্চ ইউক্রেনীয় সরকার ক্রিপ্টোকারেন্সিতে অনুদান সংগ্রহের জন্য একটি অফিসিয়াল ওয়েবসাইট চালু করেছে। রাষ্ট্রপতি ভলোদিমির জেলেনস্কি পরবর্তীকালে ইউক্রেনের ক্রিপ্টো বাজার নিয়ন্ত্রণের জন্য ভার্চুয়াল সম্পদের আইনে স্বাক্ষর করেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.